শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ০২:৩৩ অপরাহ্ন

হিলিতে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ২০ টাকা কমেছে

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক:  দিনাজপুরের হিলিতে কমতির দিকে রয়েছে পেঁয়াজের দাম।এক সপ্তাহের ব্যবধানে হিলিতে পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে মসলাপণ্যটির দাম কেজিতে ২০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, হিলিতে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আমদানি করা ও দেশে উৎপাদিত উভয় ধরনের পেঁয়াজের সরবরাহ বেড়েছে। ফলে কমতির দিকে পণ্যটির দাম।

সরেজমিন হিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে আমদানি করা ও দেশে উৎপাদিত উভয় ধরনেই পেঁয়াজের যথেষ্ট সরবরাহ রয়েছে। গতকাল বাজারটিতে দেশে উৎপাদিত পেঁয়াজ ৮০ টাকা   কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। এক সপ্তাহ আগে একই ধরনের পেঁয়াজের কেজি ছিল ১০০ টাকা। তবে এদিন মেহেরপুর অঞ্চলের সুখসাগর পেঁয়াজের দাম আরো কম ছিল। হিলিতে গতকাল এ অঞ্চলের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে কেজিপ্রতি ৬০ টাকা, এক সপ্তাহে আগে যা ছিল ৭০-৭৫ টাকা। অন্যদিকে মিয়ানমার থেকে আমদানি করা প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়, এক সপ্তাহ আগে যা ১২০ টাকা করে বিক্রি হয়েছিল।

হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা রেজাউল ইসলাম ও সবুজ হোসেন জানান, পেঁয়াজের দাম কিছুতেই নাগালের মধ্যে আসছে না। বর্তমানে মসলাপণ্যটির দাম কিছুটা কমেছে। তবে তা যথেষ্ট নয়। সাধারণ মানুষের জন্য তা এখনো সাধ্যের বাইরে। তবে কয়েকদিন আগের তুলনায় দাম কিছুটা যে কমেছে, এটাই স্বস্তির বিষয়। আগামী দিনগুলোয় পেঁয়াজের দাম আরো কমবে বলে প্রত্যাশা করছেন তারা।

হিলি বাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতা শাকিল খান ও ফেরদৌস রহমান জানান, পেঁয়াজের বাজার বর্তমানে একেবারে অনিশ্চিত অবস্থানে। এই কমছে তো, ফের বাড়ছে। গত সপ্তাহে বাজারে সরবরাহ কমে যাওয়ায় মসলাপণ্যটির দাম বেড়ে গিয়েছিল। তবে চলতি সপ্তাহে আমদানিসহ দেশে উৎপাদিত পেঁয়াজের সরবরাহ বেড়েছে। ফলে দামও কমতে শুরু করেছে।


© ২০১৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত সময়ের কন্ঠ লিঃ
কারিগরি সহায়তায় N Host BD