বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

বাড়ছে করোনা ঝুঁকি, প্রণোদনার আশায় অফিস করেন অনেক ব্যাংক কর্মকর্তা

স্টাফ রিপোর্টারঃ অনেক কর্মকর্তার অফিসে আসার প্রয়োজন নেই, তবু তারা অফিস করছেন। ব্যাংকারদের জন্য প্রণোদনা ঘোষণার পর অনেকেই অফিসের প্রয়োজন ছাড়াই নিজেই অফিসে আসছেন। তাই করোনা বোনাসের অপব্যবহার রোধে সতর্কতা জারি করেছে অগ্রণী ব্যাংক। যারা নিজের জীবন ও পরিবারকে ঝুঁকিতে রেখে অফিস করেছেন, কেবল তারাই প্রণোদনা পাবেন। এই সময়ে যেসব কর্মকর্তা জীবনের ঝুঁকি নিয়েছেন, শুধু তাদের জন্যই আর্থিক প্রণোদনা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

মঙ্গলবার (৫ মে) জারি করা এক সার্কুলারে অগ্রণী ব্যাংক বলেছে, সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিকালীন ব্যাংকিং খাতকে সচল রাখতে যারা তাদের জীবন ও পরিবারকে ঝুঁকিতে রেখেও সক্রিয়ভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং করে যাচ্ছেন, শুধু তাদের দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতিস্বরূপ প্রণোদনা দেওয়া হবে। এই প্রণোদনা যাতে কোনোক্রমেই অপব্যবহার না করা হয়, সেদিকে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এর আগে গত রোববার এক অফিস আদেশে অগ্রণী ব্যাংক বলেছে, রোস্টারের বাইরে যারা অফিস করেছেন, তারা বোনাস পাবেন না। ৮ এপ্রিলের আগে থেকে অফিসে আসা কর্মকর্তাদের বোনাস প্রাপ্য বলে ওই আদেশে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, সাধারণ ছুটির মধ্যে ২৯ মার্চ থেকে ব্যাংক সীমিত আকারে খোলা রয়েছে। ব্যাংকারদের আপত্তির মুখেও ব্যাংক নির্ধারিত কর্মকর্তারা ব্যাংকিং সেবা দিতে অফিস করেছেন। কিন্তু ১২ এপ্রিল করোনায় সময় ১০ দিন অফিসে এলে পুরো মাসের বেসিক বেতনের সমপরিমাণ বোনাসের ঘোষণা দেওয়া হয়। এরপর থেকে অনেক ব্যাংকার অফিসে যাতায়াত শুরু করেছেন বলে বিভিন্ন ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে। এতে ব্যাংক কর্তৃক রোস্টারের আওতায় অফিসে আসা কর্মকর্তারা বিরক্তিও প্রকাশ করেছেন।


মুজিব বর্ষ

মুজিববর্ষ
© ২০১৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত সময়ের কন্ঠ লিঃ
কারিগরি সহায়তায় N Host BD